default-image

বছরখানেক আগের কথা। তখন ক্লাস ওয়ানে পড়ি। বাংলার ক্লাস হচ্ছে। বাংলার স্যার খুব মজার মানুষ। প্রতিটি সারি থেকে একজনকে স্যারের করা প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। হঠাৎ একটা সহজ প্রশ্ন করলেন স্যার। আমিসহ অনেকেই হাত তুলল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই আমি ছাড়া সবাই হাত নামিয়ে ফেলল। আমার পাশ থেকে কে যেন বলল, ‘এই ছেলে এই, হাতটা নামিয়ে ফেলো, প্লিজ। আমি কখনো স্যারের আদর পাইনি। উত্তরটা বলে আদর পাওয়ার চেষ্টা করব। হাতটা নামিয়ে ফেলো, প্লিজ।’ কিন্তু আমি হাত নামালাম না এবং স্যার আমাকেই উত্তর দিতে বললেন। একনিশ্বাসে উত্তর দিলাম আমি। সিটে বসার সময় ছেলেটি হড়বড় করে বলল, ‘তোমাকে না হাত নামাতে বলেছিলাম! সবাই তো আমার কথা মানল! ফাজিল, বেয়াদব! মোটা!’

এই গালিগুলো সহ্য হয়ে যায় আমার। কিন্তু মনে হলো ছেলেটাকে একটু–আধটু শাস্তি দেওয়াই যায়। আমি তড়াক করে বেঞ্চ থেকে উঠে হাত তুললাম। ছেলেটা বুঝে ফেলল যে আমি তার নামে নালিশ দিতে যাচ্ছি। সে রীতিমতো হুমড়ি খেয়ে আমার পা ধরে কাঁদো কাঁদো হয়ে বলল, ‘আরে আমি তো মজা করছিলাম! সরি ভাই!’ আমি খুব স্বাভাবিকভাবে তার দিকে তাকিয়েই স্যারকে বললাম, ‘স্যার, বাথরুমে যাব।’ শুনে ছেলেটা আকাশ থেকে পড়ল। আমি আর আমার চারপাশে থাকা ছেলেগুলো হেসে উঠলাম খিকখিক করে!

বিজ্ঞাপন
কিশোর আলো থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন