default-image

ফরিদপুরের ঈশান বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী স্বর্ণাভা জাহান। সাত বছর আগে যখন কিশোর আলো প্রথম প্রকাশিত হয়, তখন সে পড়ত তৃতীয় শ্রেণিতে। এই সাত বছরে সে সংগ্রহ করেছে কিশোর আলোর প্রতিটি সংখ্যা, যা মোট ৮১টি।

শাহজাদ ফাহমিদুন নবি ঢাকার মাইলস্টোন কলেজে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। সে ইংরেজি মাধ্যমের ছাত্র। একদমই বাংলা পড়তে চাইত না। একদিন তার মা তার জন্য কিশোর আলো কিনে আনেন। এখন সে বাংলা পড়ে, প্রতি মাসে অপেক্ষা করে কিআর (কিশোর আলো) জন্য।

কিআর প্রতি স্বর্ণাভা ও ফাহমিদুনের ভালোবাসা উঠে এসেছে তাদেরই পাঠানো চিঠিতে। কিশোর আলোর সপ্তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এমন খুদে পাঠকদের চিঠিতে সয়লাব কিআ দপ্তর।

এমন যে জনপ্রিয় কিশোর আলো, আজ বৃহস্পতিবার তার জন্মদিন। ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর প্রথম প্রকাশিত হয় কিশোর আলো। প্রকাশের পর হইচই পড়ে গিয়েছিল কিশোরমহলে। প্রথম সংখ্যা তিনবার ছাপিয়েও কুলানো যাচ্ছিল না।

বিজ্ঞাপন

মজার গল্প, উপন্যাস, কমিকস থেকে শুরু করে ভাষা, বিজ্ঞান, গণিত, লেখালেখি, ক্যারিয়ার, ছবি আঁকা, অ্যাডভেঞ্চার, কুইজ, অরিগ্যামি—নানা কিছু দিয়ে জমজমাট থাকে কিশোর আলোর প্রতিটি সংখ্যা। লেখেন শিশু-কিশোরদের প্রিয় লেখকেরা।

‌‘আমার পৃথিবী অনেক বড়’ স্লোগান নিয়ে চলে কিআর কার্যক্রম। শুধু পাঠ্যবইয়ের পাতায় আটকে না থেকে স্বপ্ন দেখতে শেখায় কিশোর আলো। তাই শুধু ম্যাগাজিন প্রকাশ করেই থেমে থাকেনি এর কার্যক্রম, বরং ঢাকার মূল কার্যালয় থেকে ধীরে ধীরে সারা দেশে কিআ ছড়িয়ে দিয়েছে নানা রকম উদ্যোগ। দেশের নানা অঞ্চলে কিশোর আলোর নিবেদিত পাঠকেরা মিলে গড়ে তুলেছে ৫৫টি বুক ক্লাব। ক্লাবের সদস্যরা প্রতি মাসে নির্ধারিত বই নিয়ে আলোচনা করতে একত্র হয়। পাশাপাশি অংশ নেয় নানা রকম সাংস্কৃতিক, সৃজনশীল ও মানবিক কাজে।

অন্যদিকে আলোকচিত্র ও চলচ্চিত্র নিয়ে নিয়মিত কাজ করছে কিশোর আলো ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি ক্লাব। এর সদস্যরা তৈরি করছে চমৎকার সব স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, ক্যামেরার লেন্সে বন্দী করছে দারুণ সব ছবি। বিভিন্ন কর্মশালা, তারকা ও গুণীজনের সঙ্গে আড্ডাসহ আরও অনেক রকম নিয়মিত আয়োজন রয়েছে কিআর।

বিজ্ঞাপন

শিশু-কিশোরদের মানসিক ও শারীরিক সুস্বাস্থ্য নিশ্চিত করতে কিআতে প্রায়ই বিশেষজ্ঞদের মতামত ও লেখা প্রকাশিত হয়। সেই ধারাবাহিকতায় কোভিড-১৯ মহামারির সময়ও কিশোর আলোর পাতা ও অনলাইন সংস্করণে (www.kishoralo.com) প্রকাশিত হয়েছে নানা রকম লেখা। পড়াশোনায় ভালো করার উপায়, ক্যারিয়ার গঠন, মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু নিয়ে কিআর সংখ্যাগুলো ব্যাপক পাঠকপ্রিয়তা পেয়েছে। এ বিষয়ক লেখাগুলো শিশু-কিশোরদের ভবিষ্যৎ ক্যারিয়ার গঠনে যেমন ভূমিকা রাখে, তেমনি উদ্বুদ্ধ করে দেশের প্রতি যথাযথ দায়িত্ব পালনেও। দেশসেরা লেখক, কার্টুনিস্ট, বিজ্ঞানী, শিল্পী—সব ক্ষেত্রের সফল ও গুণী মানুষের সান্নিধ্য পেয়ে পাঠকেরা যেন নিজেদের মননকে বিকশিত করার সুযোগ পায়, সেই ব্যাপারে সব সময় সজাগ থাকে কিশোর আলো

সপ্তম বর্ষপূর্তির এই সময়ে ঘরবন্দী কিআপ্রেমীদের সঙ্গেই আছে কিআ। ‘একসাথে কিআর সাতে’ স্লোগান নিয়ে এবার অনলাইনেই থাকছে শিক্ষামূলক ও সৃজনশীল অনুষ্ঠান। বাংলা ও ইংরেজি ভাষা, গণিত, কার্টুন, আলোকচিত্র এবং ক্যারিয়ারের নানা দিক নিয়ে গুণীজনেরা পরিচালনা করবেন এই অনুষ্ঠানগুলো। এ ছাড়া মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে থাকছে বিশেষ কুইজ প্রতিযোগিতা। দেশাত্মবোধক আবৃত্তি প্রতিযোগিতাও থাকছে। প্রথম আলোর পাতায় প্রকাশিত বিশেষ কুইজে অংশ নিয়ে পাঠকেরা পুরস্কার হিসেবে জিততে পারেন এক লাখ টাকার বই। বিস্তারিত সময়সূচি জানা যাবে কিশোর আলোর ওয়েবসাইট ও ফেসবুক পাতা এবং প্রথম আলো পত্রিকায়।

মন্তব্য পড়ুন 0