একে একে ব্যাঙ সকলে ডোবায় হলো জড়ো
বলল, ‘শেয়াল, তুই যা না, তোর বড়াইটা খুব বড়
রাতের বেলা চাষির ঘরের মুরগি করিস চুরি
দিনে ঘুমাস আড়াল হয়ে, এই তো বাহাদুরি!
“হুক্কা হুয়া” ডাকবি দিনে, আছে বুকের পাটা?
শুনলে লোকে লাঠির গুঁতায় ভাঙবে গিঁটেগাটা।
বনবাদাড়ে, ডোবা, নালায়, জলাবিলের ধারে
বর্ষা আসে ব্যাঙ সকলের ডাকার অধিকারে
তাতে যদি মুরগি চোরের ব্যাঘাত ঘটে ঘুমে
ঢোল বাজিয়ে বাড়তি নাচি টাকঢুমাঢুমঢুমে!
আর শুনে রাখ একটা কথা, বাদলা হাওয়ার বাড়ে
ব্যাঙের গলা কামানগোলা, মাইক লাগে না রে!
তা–ই যদি না হবে, তবে ঘুম টুটে ক্যান চোরের?
ব্যাঙের ডাকে ইঙ্গিত আছে শেয়ালখেদা শোরের!’

কবিতা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন