আমি পাখি হব

বিজ্ঞাপন
default-image

সকালে ঘুম থেকে ওঠা, খাওয়াদাওয়া করে ক্লাসে বসা, এক ক্লাস শেষে আরেক ক্লাসে বসা, গল্পের বই পড়া, ঘুমানো, আবার ঘুম থেকে ওঠা—আর ভালো লাগে না এভাবে! আর কত দিন?

হেডফোন কানে দিয়ে ক্লাস করতে করতে এখন তো মনে হচ্ছে কানে কম শুনি। হেডফোন টানা ১ ঘণ্টা ব্যবহার করলে নাকি দেহের ব্যাকটেরিয়া ৭০০ গুণ বৃদ্ধি পায়! এখন টের পাচ্ছি।

বাসায় না পড়া কোনো গল্পের বই নেই, তাই অন্য বইগুলো পিডিএফ আকারেই পড়তে হচ্ছে। চোখেও তো মনে হয় কম দেখছি মাঝেমধ্যে!

আর মূল কথা হলো, কিআ পড়তে পারছি না! সেই মার্চের পর থেকে আর ভাগ্যে জোটেনি আমার।

এখন তো শুধু এই অপেক্ষাতেই আছি, একদিন আবার স্কুলের মাঠ দাপিয়ে বেড়োব আমরা, আবারও হকার আঙ্কেলকে কিআর অর্ডার দিয়ে রাখব। কণ্ঠে বাজবে আল মাহমুদের কবিতার লাইন— ‘আমি নাহয় পাখিই হব, পাখির মতো বন্য।’

লেখক : শিক্ষার্থী, পাবনা।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন