default-image

প্রায় দুই মাস ধরে চলছে লকডাউন। ঘরবন্দী জীবন আমাদের। বাইরের পৃথিবীটার রূপ বদলে গেলেও তা চোখে পড়ছে না। বদলে গেছে আমাদের জীবনযাপনের ধরন। যার প্রভাব পড়ছে পরিবেশে। কলকারখানা বন্ধ, নেই গাড়ির ধোঁয়া। তাই অনেকেই মনে করছেন, করোনার এই মহামারির মধ্যে প্রকৃতি নতুন করে সুযোগ পাচ্ছে নিজেকে ঠিক করে নেওয়ার।
কিন্তু প্রকৃতির এই সেরে ওঠার কাজে কিন্তু অংশ নিতে পারি আমরাও। এই তো কিছুদিন আগে (২২ এপ্রিল) চলে গেল বিশ্ব ধরিত্রী দিবস। এই দিবসে প্রকৃতির কাছাকাছি যেতে না পারলেও প্রকৃতিকে তুমি সাহায্য করতে পারো ঘরে বসেই। সবুজ পৃথিবী গড়ে তুলতে নিচের কাজগুলো করতে পারো তুমিও।

default-image

অনলাইনে চলুক প্রকৃতি সংলাপ
শহরে যারা আছ, তাদের ইন্টারনেট ব্যবহারের সুবিধা আছে। যেহেতু বাইরে যেতে পারছ না, তাই অনলাইনে চালাতে পারো নানা রকম কর্মকাণ্ড। পৃথিবীর জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে রচনা লেখা, ছবি আঁকা কিংবা উপস্থিত বক্তৃতার আয়োজন করতে পারো অনলাইনেই। চাইলে বন্ধুরা মিলে নিজেদের মতামত নিয়ে অনলাইনেই শুরু করতে পারো লাইভ অনুষ্ঠান, যা অন্যদের অনুপ্রেরণা জোগাবে, সচেতন করবে আমাদের এই প্রিয় পৃথিবীকে নিয়ে।

default-image

প্রস্তুতি নিতে পারো আর্থ অলিম্পিয়াডের
গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, জীববিজ্ঞান কত রকমের অলিম্পিয়াড হয় সারা দেশে। পৃথিবীর জলবায়ু, আবহাওয়া, সমুদ্রবিজ্ঞান, পরিবেশ—এসব নিয়েও জাতীয় পর্যায়ের অলিম্পিয়াডের আয়োজন করা হয়। যেখানে নির্বাচিত বিজয়ীরা অংশগ্রহণের সুযোগ পায় আন্তর্জাতিক আর্থ সায়েন্স অলিম্পিয়াডে। অনূর্ধ্ব ১৮ বছর বয়সের অষ্টম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পড়ুয়া যে কেউ চাইলে অংশ নিতে পারে এই আয়োজনে। লকডাউনের এই বিরতিতে চাইলে তুমিও প্রস্তুতি নিতে পারো এই অলিম্পিয়াডের। প্রস্তুতির বিস্তারিত পাবে byei.org/neo ঠিকানায়।

default-image

শুরু করো সবজি খাওয়া
বাসার সবজি রান্না হলে খাবার টেবিল থেকে দৌড়ে পালাও তুমি। কিন্তু সেটা একটু বদলে নিতে পারো এই লকডাউনে। একটু একটু করে সবজি খাওয়ার অভ্যাস করতে পারো তুমিও। কারণ, তুমি যখন বেশি বেশি আমিষজাতীয় খাবার (মাছ, মাংস, ডিম) খাচ্ছ, তখন এগুলো উৎপাদনে পরিবেশের ক্ষতি হচ্ছে। তোমার খাদ্যাভ্যাসের এই সামান্য পরিবর্তন একদিকে যেমন পরিবেশের উপকার করবে, তেমনি তোমার স্বাস্থ্য ভালো রাখবে।

default-image

কমিয়ে ফেলো প্লাস্টিকের ব্যবহার
পরিবেশদূষণের আরও বড় একটি কারণ হলো প্লাস্টিক। তোমার বাসায় কী পরিমাণ প্লাস্টিক ব্যবহার করা হচ্ছে, সেটার একটা তালিকা বানিয়ে ফেলতে পারো তুমি। তারপর সেটা একটু সাজিয়ে বাসার বড়দের বোঝাতে পারো পৃথিবী রক্ষায় তারা কী কী উপায়ে প্লাস্টিকের ব্যবহার কমাতে পারে। সেটা হতে পারে বাজার করতে গিয়ে প্লাস্টিকের ব্যাগ ব্যবহার না করা কিংবা অনলাইনে খাবার অর্ডার করলে সেটাতে প্লাস্টিকের চামচ না নেওয়া। তোমার পরিবারে প্লাস্টিকের ব্যবহারের তালিকা বানাতে নিচের টেবিলটি দেখতে পারো:

 

শনি

রবি

সোম

মঙ্গল

বুধ

বৃহ.

শুক্র

সর্বমোট

(পরিমাণ)

ওজন

(সর্বমোট পরিমাণের সঙ্গে গড় ওজন গুণ করতে হবে)

পলিথিন

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্লাস্টিকের ব্যাগ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্লাস্টিকের মোড়ক

 

 

 

 

 

 

 

 

 

প্লাস্টিকের কাপ-চামচ

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সর্বমোট

 

 

default-image

করতে পারো ছাদবাগান
সুন্দর পৃথিবীর জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হতে পারে গাছ লাগানো। যারা গ্রামে থাকো, তাদের গাছ লাগানোর সুযোগ থাকলেও শহরে গাছের পরিচর্যা করা, বাগান করা একটু কঠিনই। তবে লকডাউনের এই ফাঁকে তুমিও কিন্তু গড়ে ফেলতে পারো তোমার ছোট্ট একটা বাগান। বাসার পুরোনো মাটির বাসন, প্লাস্টিকের বোতলকে কাজে লাগিয়ে এই সুযোগে লাগাতে পারো ছোট ছোট গুল্ম জাতের গাছ। বাগান করতে গিয়ে গাছ নিয়ে নানা কিছু জানা হবে তোমার। আনন্দের ভেতর দিয়ে সময় কাটাতে গিয়ে সুন্দর এই শহরে আরও অক্সিজেন যুক্ত করবে তোমার ছোট্ট ছাদবাগান।

default-image

খেয়াল রাখো চারপাশের প্রাণীদের
এই লকডাউনে তুমি নিরাপদে তোমার বাসায় থাকতে পারলেও তোমার চারপাশের অনেক প্রাণীই অযত্নে আছে। তাদের খেয়াল রাখার চেষ্টা করো। বারান্দা বা ছাদে কিছু দানা খাবার আর পরিষ্কার পানি রাখতে পারো পাখিদের জন্য। বাসায় কোনো পোষা প্রাণী থাকলে ওদের খেয়াল রাখতে ভুলো না কিন্তু। আর সম্ভব হলে বাসার আশপাশে থাকা প্রাণীদের সামান্য খাবারের ব্যবস্থাও করতে পারো। এসব প্রাণী নিয়েই তো আমরা তৈরি করতে পারব সুন্দর সবুজ পৃথিবী।

পড়ো, দেখো আর জানো প্রকৃতিকে নিয়ে
ঘরে থাকার দিনগুলোতে সেরা কাজ হবে প্রকৃতিতে আরও গভীরভাবে জেনে নেওয়া। পৃথিবীর আবহাওয়া আর জলবায়ু নিয়ে নানা রকম তথ্যচিত্র, আলোকচিত্র ও চলচ্চিত্র পাবে অনলাইনে। সময় করে দেখে নিতে পারো সেগুলো। জানতে পারো জাপানের হিরোশিমা-নাগাসাকির পারমাণবিক বিস্ফোরণ কিংবা চেরনোবিলের পারমাণবিক চুল্লির কারণে প্রকৃতির কী ক্ষতি হয়েছে। এসব জানাশোনা তোমাকে বুঝতে সাহায্য করবে পৃথিবী সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানার।

বাইরে না যেতে পারলেও এভাবে নানা পন্থায় তুমিও উদ্‌যাপন করতে পারো বিশ্ব ধরিত্রী দিবস। তুমিও গড়ে তুলতে পারো আগামীর সুন্দর পৃথিবী।


সূত্র : আর্থডে ডট ওআরজি, ছবি : ইন্টারনেট

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0