default-image

শেষবার বাসার গেটের বাইরে বের হয়েছিলাম মার্চ মাসে। যেহেতু এবার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী, তাই পড়ার চাপ একটু বেশি। প্রতিদিন অনলাইনে ক্লাস করতে করতেই দিন শেষ হয়ে যায়। অবশ্য ঘরে থাকার একটা আরাম, সকালে ওঠার কোনো তাড়া নেই! তাই এত দিনের জমে থাকা অনেক ঘুম একটু ঘুমিয়ে নিলাম! পড়াশোনার পাশাপাশি করা হচ্ছে অনেক কিছু। ফ্রেঞ্চ শেখার একটা কোর্স করছি। এ ছাড়া আগে স্প্যানিশ শিখেছিলাম, এখন সময় পেয়ে সেটা একটু ঝালাই করে নিচ্ছি। মাঝেমধ্যে ঘরের কাজে আম্মুকে সাহায্য করছি, এতে যদি আম্মুর একটু আরাম হয়! সব মিলিয়ে খারাপ যাচ্ছে না সময়, তবে অনেক কিছুই মিস করছি। আগে স্কুলে যেতে ইচ্ছা করত না, এখন মনে হয় যখন স্কুল খুলবে তখন সেখানেই থাকা শুরু করব! বন্ধুদের সঙ্গে কত দিন দেখা হয় না! আর দাদাবাড়ি-নানাবাড়ি কবে গেছি, তা তো মনেই নেই। তবে এই লকডাউন জীবনের এক অন্য রকম অভিজ্ঞতা হয়ে থাকবে। হাজার হোক, এমন ঘটনা তো খুব বেশি হয় না। পরে ছোটদের সঙ্গে গল্প করতে পারব, ‘জানিস, কী এক ভয়ংকর মহামারি এল, আমরা তিন মাস ঘরে বন্দী ছিলাম। সে কী ভয়াবহ অবস্থা!’

লেখক : শিক্ষার্থী

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0