বিজ্ঞাপন

তবে ডিএল মেথডের হিসাবেই যত সমস্যা, একটু ভেঙে বলি। ৫০ ওভারে যদি কোনো দল ২০০ রান করে আর এরপরই বৃষ্টি শুরু হয়, তাহলে প্রতিপক্ষ দলের ২৫ ওভারে টার্গেট কত হতে পারে? অনেকেই হয়ত ভাবছ ২০০ রানের অর্ধেক রান নিশ্চয়ই ১০১। কিন্তু ডিএল মেথড ধাঁধার থেকেও বেশি জটিল!

ডিএল মেথডে মূলত দুটি বিষয়ে প্রাধান্য দেওয়া হয়। ওভারসংখ্যা এবং উইকেট। কার্টেল ওভার হয়ে গেলেও উইকেট কিন্তু প্রতিপক্ষের হাতে দশটাই রয়েছে। সুতরাং প্রতিপক্ষ এদিক থেকে কিছুটা হলেও সুবিধা পাবে। বাংলাদেশের সর্বশেষ ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের উদাহরণটাই দেওয়া যাক। উইন্ডিজ ২৪ ওভারে করল ১৫২। আর সেটাই কিনা বৃষ্টি নিয়মে বাংলাদেশের টার্গেট হলো ২১০! এতক্ষণে এর কারণটা নিশ্চয়ই পরিষ্কার। উইন্ডিজ কিন্তু ২৪ ওভারে ১৫২ রান করেছিল এক উইকেটে। আর এর সুবিধাই পেয়েছিল ওরা। যদিও টাইগারদের সামনে এই সুবিধাটুকুও কোনো কাজে দেয়নি।

আইসিসির সর্বশেষ নিয়মানুসারে আরেকটি ব্যাপার যোগ করা হয়েছে। ইনিংসের শেষ দিকে যে দল বেশি রান করবে এবং যাদের হাতে বেশি উইকেট থাকবে, একটু বাড়তি সুবিধা পাবে তারা৷ ৫০ ওভারের ম্যাচের ক্ষেত্রে ইনিংসের শেষ ২০ ওভারের রান রেট বেশি গুরুত্ব পাবে৷

বৃষ্টি আইনটা যে শুধু সাধারণ মানুষের কাছেই জটিল তা কিন্তু নয়, ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি নিজেই একবার বলেছিলেন, ‘আসলে এই আইনটা আমি খুব একটা ভালো বুঝি না!’

খেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন